ইমেইল : info@crime-flash.com



» রাশিফল

Monday 11th of August 2014 অ- অ+

কেমন যাবে ২০১৪ সাল


ডেস্ক রিপোর্ট :২০১৪-তে আমরা সবাই থাকব ২+০+১+৪ = ৭-এর ঘরে। ৭ হচ্ছে একটি আধ্যাত্মিক ও শুভ সংখ্যা। এর ইতিবাচক প্রভাব সবখানেই পড়বে। তবে এটিও মনে রাখা বাঞ্ছনীয়, রাশি কখনোই ভাগ্যনিয়ন্তা নয়। মানুষের কর্মই তার ভাগ্য নির্ধারণ করে। জ্যোতিষশাস্ত্র কেবল কিছু সূত্র ধরে সম্ভাবনার পথ বাতলে দেয়। সংখ্যাতত্ত্বের নিরিখে ১২ রাশির ২০১৪ সালের রাশিফল তুলে ধরা হলো।

মেষ [২১ মার্চ-২০ এপ্রিল]
মেষ রাশির শুভ সংখ্যা ৩ ও ৯।
শুভ রং : লাল, বেগুনি ও সাদা।
শুভ রত্ন : প্রবাল, শুভ ধাতু : তাম্র

মেষ রাশির বৈশিষ্ট্য : মেষ রাশি মঙ্গলগ্রহের জাতক। জয়ের নেশায় প্রাণান্ত লড়াই করা মেষ জাতকের স্বভাব। মেষ জাতক-জাতিকার মধ্যে সাহস, ব্যক্তিত্ব ও তেজস্বী মনোভাবের প্রাবল্য থাকে। মেষ রাশির জন্মকালে মঙ্গল, রবি, বৃহস্পতি ও বুধ অনুকূল থাকলে তা জীবন সংগ্রামে সাফল্য আনতে বিশেষ সহায়তা করে। সব কাজে এরা নেতৃত্ব দিয়ে থাকে। এদের জীবনীশক্তি অত্যধিক।

নতুন বছরটি কেমন যাবে : অতীতের বাধাবিঘ্ন পাড়ি দিয়ে এগিয়ে যাবেন ২০১৪ সালে। নতুন উদ্দীপনায় জেগে উঠুন। যারা পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন, এ বছর তাদের কেউ কেউ প্রত্যাশার চেয়ে ভালো ফলাফল অর্জন করবেন। অতি আনন্দ নিরানন্দের কারণ হতে পারে নববিবাহিত দম্পতিদের ক্ষেত্রে, সংযমী হতে হবে। রাজনীতিতে যোগ দিতে হতে পারে। বেকারদের জন্য বছরটি ঘটনাবহুল হবে। এ ছাড়া শিক্ষকদের সঙ্গে মতবিরোধেও জড়িয়ে পড়তে পারেন কেউ কেউ। সম্পত্তির ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে একাধিকবার পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হতে পারে। এ বছর একাধিক সফল প্রেমের শুভ সূচনা ঘটবে। পাশাপাশি পরকীয়ার ঘটনা ঘটতে পারে বেশ কয়েকটি। পুরো বছরটিকে আপনি দুটো ভাগে ভাগ করে নিতে পারেন।প্রথম ভাগে আপনার পেশাগত জীবনের গতি কিছুটা ধীর হয়ে আসতে পারে। অল্প সময়ের মধ্যে অনেক কঠিন কঠিন কাজের চাপ আপনার জীবনকে অভাবনীয় বিরক্তির মুখে ফেলতে পারে। এমনও হতে পারে আপনাকে কোনো একটি প্রকল্প সামলাতে হবে। কী করবেন? প্রথমেই মাথাটা ঠাণ্ডা রাখুন। প্রয়োজন মতো ঘুমিয়ে নিন। নিজের জীবনীশক্তির উপর বিশ্বাস রাখুন। এর মাঝেই আবিষ্কার করে ফেলতে পারেন নিজেকে। তাহলেই সাফল্য ধরা দিবে।

বৃষ [২১ এপ্রিল-২১ মে]
বৃষ রাশির শুভ সংখ্যা ৬।
শুভ রং : আকাশি, কমলা।
শুভ রত্ন : পান্না, শুভ ধাতু : প্লাটিনাম

বৃষ রাশির বৈশিষ্ট্য : বৃষ রাশির মধ্যে রয়েছে এক অনমনীয় দৃঢ়তা অথচ তাদের মধ্যে স্নেহ, মমতা, ভালোবাসা ও আনন্দ উপভোগের অভিলাষও কম নয়। এরা সাধারণত ধীরস্থির, ভদ্র ও শান্ত প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা সুশৃঙ্খল এবং আইন-কানুনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়। এরা যে কাজে নিযুক্ত হয় সে কাজে সাফল্য লাভের তীব্র ইচ্ছা পোষণ করে। নতুন বছর বছরের আগাগোড়াই স্বাস্থ্য মোটামুটি ভালো যাবে। অবিবাহিতদের হঠাত্ বিয়ের যোগ, নতুন কেউ বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দেবে। বিপরীত লিঙ্গের কেউ সুন্দর বুদ্ধি দিয়ে সাহায্য করতে পারে। ব্যবসা ক্ষেত্রে সম্ভাবনার নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। বৈদেশিক যোগাযোগের ক্ষেত্রে দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টা এ বছর সাফল্যের মুখ দেখবে। তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে যে মন্দাভাব বিরাজ করছিল তার অবসান হবে।

কেমন যাবে : ছাত্রছাত্রীদের জন্য বছরটি অত্যন্ত শুভ। বিশেষ করে তরুণ-তরুণীরা এ বছর ভালো ফল পাবে। যারা বিদেশে অধ্যয়নে আগ্রহী, এ বছর তাদের অনেকেই এ ক্ষেত্রে সুযোগ পাবেন। ছাত্রছাত্রীদের কেউ কেউ বিভিন্ন প্রতিযোগিতা-মূলক কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়ে সফল হবেন। গেল বছরের জঞ্জাল কেটে যাবে এ বছর। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া প্রেম জোড়া লাগতে পারে। বন্ধুত্বের সম্পর্ক কোনো কোনো ক্ষেত্রে প্রেমে রূপ নিতে পারে। তবে প্রেমের বিয়ের বিষয়ে দুই পক্ষকেই আরও সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।

মিথুন [ ২২ মে-২১ জুন]
মিথুন রাশির শুভ সংখ্যা ৫।
শুভ রং : হালকা সবুজ, ক্রিম।
শুভ রত্ন : পোখরাজ, শুভ ধাতু : রুপা।

মিথুন রাশির বৈশিষ্ট্য : মিথুন রাশি বুধ গ্রহের জাতক। বড় রহস্যপূর্ণ এই রাশি। দ্বৈততা এদের চরিত্রে প্রকট। বৈচিত্র্যপ্রিয় এই রাশির পুরুষ জাতকের যেমন রয়েছে দৃঢ়তা, কর্মশক্তি ও উত্পাদন শক্তি, তেমনি জাতিকার রয়েছে নারীসুলভ মমতা, নম্রতা, ভালোবাসা এবং স্নেহ। এদের বুদ্ধি খুব তীক্ষ হয়ে থাকে। সৃজনশীল কাজ, শিল্প-সাহিত্য, সংগীত, নৃত্য এবং অভিনয়ে এদের যোগ্যতা থাকে। এদের মধ্যে উদারতা, পর দুঃখকাতরতা এবং দৈবানুভূতি প্রবল হয়। একই সঙ্গে দুটো কাজে লেগে থাকা মিথুনের আরেকটি স্বভাব। নির্ভীক ও আত্মবিশ্বাসীও এদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য।

নতুন বছর কেমন যাবে : এ বছর সাহিত্যকর্মের জন্য বিদেশের কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে সম্মাননা পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। চিত্রশিল্পীদের কারও কারও আঁকা ছবি বিদেশের মাটিতেও প্রশংসা কুড়াবে। এ বছর ছাত্রছাত্রীদের অনেকেরই ভাগ্য সুপ্রসন্ন হবে। অনেকটা আকস্মিকভাবেই বিদেশে পড়ালেখার সুযোগ পাবেন কেউ কেউ। এ বছর কখনো কখনো স্বাস্থ্য কিছুটা ভোগাবে। দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বের সম্পর্ক একসময় প্রেমে রূপ নিতে পারে। যারা এ বছর নতুন প্রেমে জড়াবেন তাদের অনেকেই শেষ পর্যন্ত সাফল্যের মুখ দেখবেন। প্রেমের ব্যাপারে সাফল্যের পাশাপাশি দুই-একটি ব্যর্থতা ও প্রতারণার ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা একদম উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। সৃজনশীল কর্মকাণ্ডের ক্ষেত্রে ইতিবাচক ঘটনা ঘটবে। তবে বছরের শেষার্ধে তাদের চরম মূল্য দিতে হতে পারে।

কর্কট [২২ জুন-২২ জুলাই
কর্কট রাশির শুভ সংখ্যা ২।
শুভ রং : হালকা সবুজ, সাদা ও কমলা।
শুভ রত্ন: মুক্তা, শুভ ধাতু : শঙ্ক ।

কর্কট রাশির বৈশিষ্ট্য : কর্কট চন্দ্রগ্রহের জাতক। এটি জল রাশি এবং এর অর্থ কাঁকড়া। এ রাশির জাতক-জাতিকারা ঘরমুখী, সংবেদনশীল, আত্মকেন্দ্রিক ও খেয়ালি স্বভাবের হয়ে থাকে। এরা অতিরিক্ত কল্পনা ও আবেগপ্রবণ। এরা নিজের মনকে বেশি প্রাধান্য দেয়। আনন্দের নেশা এদের মধ্যে যেমন প্রবল হয়, তেমনি মাঝে মধ্যেই বিষণ্নও হয়ে ওঠে। অন্যের জন্য কিছু করলেও প্রতিদানে খুব একটা পায় না তারা। পরোপকারের প্রতি ঝোঁক রয়েছে, সবাইকে আপন করে নিতে চায়। এদের স্মৃতিশক্তি বেশ তীক্ষ।

নতুন বছর কেমন যাবে : এ বছরের শুরুতেই বিয়ে-শাদীর ঘটনা ঘটবে। এছাড়া প্রেমের ক্ষেত্রে চমকপ্রদ কিছু ঘটনা ঘটতে পারে। অন্যের প্ররোচনায় প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে যাতে কোনোরকম ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। বিদেশ যাত্রার ক্ষেত্রেও সাফল্যের ঘটনা ঘটবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে। পারিবারিক পরিমণ্ডলে এ বছর আপনাকে কুশলী হতে হবে। পরিবারের কেউ কেউ চাকরি ক্ষেত্রে আপনার আটকে থাকা পদোন্নতির ইতিবাচক সিদ্ধান্তের ব্যাপারে সরাসরি বা প্রত্যক্ষ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে। বছরের বেশিরভাগ সময়ই আপনার বাড়ি মেহমানে মুখরিত থাকবে। বন্ধুত্বের সম্পর্ক প্রেমে রূপ নিতে পারে। যারা নতুন প্রেমে জড়িয়েছেন তাদের কারও কারও সম্পর্ক বিয়েতে গড়ানোর সম্ভাবনা আছে। ব্যবসা ক্ষেত্রে নতুন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন সহজ হবে।

সিংহ [২৩ জুলাই-২৩ আগস্ট]
সিংহ রাশির শুভ সংখ্যা ১।
শুভ রং : হলুদ, সোনালি
শুভ রত্ন : চুন্নি ও প্রবাল, শুভ ধাতু : তাম্র

সিংহ রাশির বৈশিষ্ট্য : এদের মধ্যে রাজকীয় ভাব বিদ্যমান। এদের আভিজাত্যের প্রতি মোহ থাকে। এরা উদার, দৃঢ়সংকল্প এবং নেতৃত্বশক্তির অধিকারী হয়। ঈষৎ গর্বিত, আগ্রহী এবং অন্যদের আকর্ষণ করানোর ক্ষমতা এদের প্রবল। বিশৃঙ্খলা একেবারেই ভালোবাসে না এরা। সবার জন্য নিজের স্নেহপ্রীতি, ভালোবাসা উজাড় করে দেয়। নিজের বিচার-বুদ্ধির ওপর তীব্র আস্থা থাকে, প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাসী হয়। অনেক সময় প্রতিহিংসাপরায়ণ ও জেদের বশবর্তী হয়ে ট্র্যাজেডির শিকার হয়।

বছরটি কেমন যাবে : এ বছর প্রেমের বিয়েতে অভিভাবকের সম্মতি পাওয়া সহজ হবে। নববিবাহিত দম্পতির মধ্যে সৃষ্ট ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। এ বছর অনেকেই প্রবাসী পাত্র-পাত্রীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হবেন। ব্যক্তিগত স্বার্থরক্ষার চেয়ে সমষ্টিগত স্বার্থরক্ষার প্রতি আপনার লক্ষ্য থাকবে। তাই সামাজিক পরিমণ্ডলে এ মাসের মধ্যেই আপনি প্রায় সবার কাছেই গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠবেন। ব্যবসায়ীদের ভাগ্য এ বছর আকাশছোঁয়া। ব্যবসায়ে আটকে থাকা বকেয়া পাওনার ব্যাপারে এ বছর একটি গ্রহণযোগ্য সমাধান খুঁজে পাওয়া যাবে। শৌখিন দ্রব্যের ব্যবসায়ে সাফল্য আসতে পারে। এ ছাড়া সুতা, কাপড়, তৈরি পোশাক কিংবা যন্ত্রপাতির ব্যবসায়ে হাত দিলেও লাভবান হবেন। যারা ঠিকাদারি ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত তাদের কেউ কেউ বছরের শুরুতে ভালো কাজের প্রস্তাব পাবেন। চাকরিজীবীদের জন্য বছরটি ভালোই যাবে। যারা নতুন চাকরিতে ঢুকেছেন তাদের কেউ কেউ বিদেশে প্রশিক্ষণের সুযোগ পাবেন। কখনো কখনো সহকর্মীর ভুলের দায়ভার আপনার উপরে চাপিয়ে দেওয়া হতে পারে। বছরের কোনো কোনো সময় বদলি সংক্রান্ত ঝামেলায় পড়ার সম্ভাবনাকে একেবারে নাকচ করে দেওয়া যাচ্ছে না। আবার কারও কারও ক্ষেত্রে সফলতার সর্বোচ্চ শিখরে পৌঁছানোর সম্ভাবনা রয়েছে। বছরের শুরুতেই শিক্ষা ক্ষেত্রে ভর্তি সংক্রান্ত জটিলতা মিটে যাবে।

কন্যা [২৪ আগস্ট-২৩ সেপ্টেম্বর]
কন্যা রাশির শুভ সংখ্যা ৫।
শুভ রং : ফিরোজা, চকলেট।
শুভ রত্ন : পান্না শুভ ধাতু : রুপা।

কন্যা রাশির বৈশিষ্ট্য : কন্যা রাশি বুধ গ্রহের জাতক। কুমারী কন্যা পবিত্রতার প্রতীক, যার প্রসন্ন সরলতা মানুষের মনে আশ্বাস জাগায়। উচ্চাকাঙ্ক্ষা কন্যার চালিকাশক্তি। এ রাশির জাতক-জাতিকারা অত্যন্ত প্রশংসাপ্রিয় হয়। আত্মাভিমান প্রবল এদের। সমালোচনা এদের সহ্য হয় না। এরা ভ্রমণপ্রিয়। তবে ঘরে থাকলে প্রবাসের আনন্দের সন্ধান করে আবার প্রবাসে থাকলে গৃহ সুখের।

নতুন বছর কেমন যাবে : সব মিলিয়ে বছরটি ভালো যাবে। আপনি লক্ষ্য করলে দেখবেন, বৈদেশিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি সুযোগ হাতে আসবে। তবে সাবধানে এগোতে হবে। কারণ নিশ্চিত না হয়ে প্রবাস বা বিদেশ সফরে গেলে অনিশ্চয়তায় পড়তে পারেন। ভুগতে পারেন অর্থকষ্টে। এ বছর ব্যবসায়ে পাওনা টাকা সহজেই আদায় হবে। শিল্প সংস্থাপন কিংবা প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় অর্থের জোগান পাওয়া সহজ হবে। ব্যাংক-ঋণ পেতেও তেমন কোনো সমস্যা হবে না। যারা গত বছর প্রেমের ব্যাপারে আশাহত হয়েছিলেন, এ বছর তাদের অনেকের জীবনে প্রেম আসবে নির্ভরতার প্রতীক হয়ে। ব্যবসায়িক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হবে বিপরীত লিঙ্গের সহযোগিতায়। লটারি কিংবা অন্য কোনো উপায়ে আকস্মিকভাবে অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। শিক্ষাক্ষেত্রে দারুন উন্নতি হবে এ বছর। বিলাসদ্রব্যের ব্যবসায় উন্নতি হবে। অন্যদিকে কারও কারও সম্পর্ক পারিবারিক সম্মতিতে শেষ পর্যন্ত বিয়েতে গড়াবে। তাই পারিবারিক সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দিলে লাভবান হবেন।

তুলা [২৪ সেপ্টেম্বর-২৩ অক্টোবর]
তুলা রাশির শুভ সংখ্যা ৫ ও ৬।
শুভ রং : ফিরোজা, আকাশি ও সাদা।
শুভ রত্ন : হীরা-পান্না শুভ ধাতু : স্টিল।

তুলা রাশির বৈশিষ্ট্য : এ রাশির জাতক-জাতিকার বিচার-বিশ্লেষণ ও লোকচরিত্র বোঝার ক্ষমতা প্রবল। এরা ভারসাম্যপূর্ণ, সুহূদয় ও বুদ্ধিদীপ্ত হয়ে থাকে। জাতকের আনন্দের নেশা ও বিপরীত লিঙ্গের প্রতি আকর্ষণ প্রবল। ভোগবিলাসে এদের সুরুচির প্রকাশ ঘটে থাকে। ন্যায়সঙ্গত মতপ্রকাশে পশ্চাৎপদ হয় না।

নতুন বছর কেমন যাবে : বছরের শুরুতেই আপনার বেশির ভাগ সময় পরিবারের জন্য ব্যয় করতে হবে। অন্যদিকে শুরু নয়, শেষার্ধে আপনার জন্য প্রত্যাশা অপেক্ষা করছে। তার মানে এই নয় যে, বছরের শুরুটা খারাপ যাবে। ভালো যাবে তবে তুলনামূলক ম্লান। বছরের দ্বিতীয়ার্ধে বিপরীত লিঙ্গের কারও কারও কাছ থেকে চাকরি ও ব্যবসা উভয় ক্ষেত্রেই প্রত্যক্ষ সহযোগিতা পাবেন। প্রত্যক্ষ না পেলেও পরোক্ষ সহযোগিতা নিশ্চিত। অন্যের পাওনা পরিশোধ করলে পিঠের বোঝা নেমে যাবে। ঠিক তেমনি পাওনা টাকা আদায়ের ব্যাপারে বিশেষ সাফল্য অর্জিত হবে। এমন কিছু পাওনা এ বছর আদায় করতে সক্ষম হবেন, যা ছিল প্রায় দুঃসাধ্য। বিশেষ করে ব্যবসায়ীরা এ বছর সাফল্যের মুখ দেখবেন। অন্যদিকে রাজনীতিবিদরা বছরের শুরুতেই এগিয়ে যাবেন। বিশেষ করে জনকল্যাণ ও সেবামূলক কাজকর্ম বেড়ে যাবে। সারা বছরই রোমান্স ও বিনোদন শুভ রয়েছে। দুই-একটি ক্ষেত্রে নিকটাত্মীয় কিংবা ঘনিষ্ঠ বন্ধুর বৈরিতার কারণে পুরনো প্রেমের সম্পর্কে ফাটল ধরবে। সারা বছরই যোগাযোগ ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। এড়িয়ে চলতে হবে নৌ ও রেলপথ।

বৃশ্চিক [২৪ অক্টোবর-২২ নভেম্বর]
বৃশ্চিক রাশির শুভ সংখ্যা ১,২,৩,৯।
শুভ রং : নীল, ঘিয়ে, চকলেট।
শুভ রত্ন : প্রবাল ও চুন্নি, শুভ ধাতু : তামা।

বৃশ্চিক রাশির বৈশিষ্ট্য : রাশিচক্রের অষ্টম রাশি বৃশ্চিক, শাসকগ্রহ মঙ্গল। এ রাশির জাতক-জাতিকারা কাজপাগল, ইচ্ছাশক্তি প্রবল, প্রয়োজনে বিদ্যুৎগতিতে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। অন্যের দোষ ধরতে পারদর্শী, পান থেকে চুন খসলে তিক্ত কথা শুনিয়ে দিতে পশ্চাৎপদ হয় না। এরা স্বাধীনপ্রিয় ও দূরদর্শী, বহু আগে থেকেই পরিকল্পনা করে একটু একটু করে লক্ষ্যে পৌঁছায়। প্রতিশোধ নেওয়ার ইচ্ছা দীর্ঘদিন মনের মধ্যে পুষে রাখতে পারে।

নতুন বছর কেমন যাবে : বছরের প্রথমভাগ (জানুয়ারি-এপ্রিল) বুধ ও নেপচুনের যৌথ প্রভাবে আপনি সর্বদাই একটি নিরাপদ স্থানে অবস্থান করতে যাচ্ছেন। এ সময়ে আপনি আপনার পরিবারকেই বেশি সময় দিতে চাইবেন এবং দিতে পারবেন। নেপচুন আপনাকে বেশ আরামেই কাটাতে সাহায্য করতে পারে। তবে আগের কোনো ঘটনা আপনার সামনে চলে আসতে পারে। সেটা আপনাকে আঘাত করলে কিছুটা ক্ষতিও হয়ে যেতে পারে। অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে যারা বকেয়া পাওনার ব্যাপারে উদ্বিগ্ন ছিলেন তাদের অনেকেই বছরের প্রথমার্ধের মধ্যেই পাওনা বুঝে পাবেন। শেয়ার ব্যবসায় বিনিয়োগ করেও লাভবান হবেন কেউ কেউ। বেকারদের অনেকেই এ বছর বিদেশ যাত্রার প্রচেষ্টায় সফল হবেন। এক্ষেত্রে কেউ কেউ প্রভাবশালীদের কাছ থেকে সার্বিক সহযোগিতা পাবেন। রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে এ বছর নাটকীয় পরিবর্তনের সম্ভাবনা আছে। মুরব্বিদের সঙ্গে কখনো কখনো মতবিরোধ দেখা দিলেও তা সীমা অতিক্রম করবে না। প্রবাসী কারও সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠলে তা ইতিবাচক পরিণতির দিকে এগোবে। সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। অর্থবিত্তের নতুন দুয়ার উন্মোচন হবে। আটকে থাকা পদোন্নতি বছরের শুরুতেই বিবেচনার জন্য উপস্থাপন করা হতে পারে। বছরটি আপনি উত্সর্গ করতে যাচ্ছেন আপনার পরিবার আর আপনার একান্ত কিছু ভালো লাগার উদ্দেশ্যে। এ ছাড়া এককথায় বলতে গেলে ২০১৪ সালটি হবে আপনার ভাগ্যের অনুকূলে। এখান থেকেই শুরু হতে পারে নতুন করে পথচলা। এগিয়ে যেতে পারবেন লক্ষ্যে।

ধনু [২৩ নভেম্বর-২১ ডিসেম্বর]
ধনু রাশির শুভ সংখ্যা ৩ ও ৯।
শুভ রং : আকাশি ও বেগুনি।
শুভ রত্ন : পোখারাজ, ধাতু : ব্রহ্মযষ্টির মূল

ধনু রাশির বৈশিষ্ট্য : ধনু রাশি বৃহস্পতি গ্রহের জাতক। এরা সত্যবাদী, আবেগী, প্রখর আত্মসম্মানবোধ সম্পন্ন এবং অন্যায় সহ্য করে না। অন্যরা সহজেই এদের ভুল বোঝে। এরা খুঁটিনাটি বিষয়ের প্রতি বেশি লক্ষ্য করে। অপ্রিয় সত্য কথা বলার জন্য শত্রু সৃষ্টি হয়। লক্ষ্য অর্জনে নিরলসভাবে কাজে ব্রতী হয়। সমাজসেবায় সুনাম লাভ করে থাকে। গুরু, শিক্ষক ও উপদেষ্টার ভাব প্রবল এদের মধ্যে।

নতুন বছর কেমন যাবে : এ বছর বেশির ভাগ প্রেমের সম্পর্কই সাফল্যের মুখ দেখবে। প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে দীর্ঘদিনের ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া সম্পর্ক জোড়া লাগবে। এ বছর পরকীয়ার অপবাদ ঘুচবে। প্রেম করে বিয়ে করলেও দাম্পত্য জীবনে সতর্ক থাকতে হবে। তবে বিয়ের ব্যাপারে বয়সের পার্থক্যটাকে প্রাধান্য দিতে হবে। অর্থাৎ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য খুব বেশি হয় না। অন্যদিকে এই রাশির জাতক-জাতিকাদের দীর্ঘদিনের প্রেম বিবাহে রূপ নেবে। ব্যক্তিত্বসম্পন্ন লোকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়বে। অহেতুক চিন্তা থেকে পরিত্রাণ পাবেন। এ বছর সাহিত্য, সংগীত, নৃত্যকলা কিংবা অভিনয়ের মাধ্যমে প্রশংসার পাশাপাশি প্রচুর অর্থ উপার্জনেও সক্ষম হবেন। এ সুবাদে বিদেশ যাত্রারও সুযোগ আসবে। তবে সব সুযোগ কাজে লাগানো ঠিক হবে না। বিদেশ যাত্রার জন্য এ বছরই প্রস্তুতি নেওয়া উত্তম সময় এ জাতক-জাতিকার। কোনো কোনো ক্ষেত্রে আপনার বিদেশি বন্ধু এ ব্যাপারে কার্যকর সহযোগিতা প্রদান করবে। এ ছাড়া শেয়ার কিংবা অন্য কোনো ফটকা ব্যবসা থেকেও মুনাফা অর্জিত হবে। পরীক্ষা, প্রেম ও রোমান্সের ক্ষেত্রে বছরটি অত্যন্ত শুভ।

মকর [২২ ডিসেম্বর-২০ জানুয়ারী]
মকর রাশির শুভ সংখ্যা ৮।
শুভ রং : নীল, চকোলেট, ক্রিম, সবুজ।
শুভ রত্ন : ক্যাটস আই, শুভ ধাতু : লৌহ

মকর রাশির বৈশিষ্ট্য : এরা শনিগ্রহের জাতক। ধৈর্য, শ্রম ও কষ্ট সহিষ্ণুতার প্রতীক মকর জাতক-জাতিকা। এদের অন্তর্দৃষ্টি তীক্ষ। প্রায় সর্ব ক্ষেত্রেই এরা যোগ্য দেখাতে পারে। কর্তব্য, প্রেম ও সামাজিকতার ব্যাপারে সাধারণ থেকে একটু স্বতন্ত্র হয়। দায়িত্বজ্ঞান, সময়জ্ঞান ও নিয়মনিষ্ঠা প্রবল হয়ে থাকে।

নতুন বছর কেমন যাবে : গত বছরের অসমাপ্ত ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড-গুলোও এ বছরের শুরুতেই ইতি টানবে। বছরটি শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ সাফল্যের বছর হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকতে পারে। কেউ কেউ ছাত্র রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ার কারণে পড়ালেখায় অমনোযোগী হওয়া সত্ত্বেও পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জন করবেন। এ বছর কেউ কেউ কাঙ্ক্ষিত বিষয় নিয়ে পড়ালেখার সুযোগ পাবেন। অদূরদর্শী দৃষ্টিভঙ্গির কারণে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে পারেন। পরিবারের প্রতি মনোযোগ বাড়াতে হবে। ব্যবসার নতুন দুয়ার খুলে যাবে এ বছর। এককথায় ব্যবসায়ীরা থাকবেন তুঙ্গে। তবে বছরের শেষে কিছুটা ভাটা পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বৈদেশিক বাণিজ্যে আগ্রহীরা গত বছর যে জটিলতা অতিক্রম করেছিলেন, এ বছরের শুরুতে তার রেশ থাকলেও প্রথম তিন মাস অতিক্রান্ত হওয়ার পর সুদিন দেখতে পাবেন। সময়োচিত সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে এ বছর একাধিক পারিবারিক কলহের সুষ্ঠু নিষ্পত্তি ঘটার সম্ভাবনা আছে। অন্যদিকে পুরনো ঝামেলাও মিটে যেতে পারে।

কুম্ভ [২১ জানুয়ারী-১৮ ফেব্রুয়ারী
কুম্ভ রাশির শুভ সংখ্যা : ১, ৩ ও ৯।
শুভ রং : নীল, গাঢ় সবুজ ও বেগুনি।
শুভ রত্ন : নীলা, শুভ ধাতু : সিসা-স্টিল।

কুম্ভ রাশির বৈশিষ্ট্য : এরা নিঃস্বার্থ ও পবিত্র হয়ে থাকে। এদের আত্মবিশ্বাস প্রবল হয়। এরা নিষ্ঠাবান, মানবপ্রেমী, সংবেদনশীল, আত্মাভিমানী ও আবদারপ্রিয়। জনপ্রিয় হলেও ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সংখ্যা কম হয়ে থাকে। ভোগ ও ত্যাগ দুই ব্যাপারেই বিশেষভাবে পারদর্শী। অত্যন্ত আরামপ্রিয় ও কিছুটা অবাস্তববাদিতার জন্য সাফল্যে বাধা আসে। ভাবপ্রবণতাকে প্রশ্রয় দিলে এদের জীবন নিরাশপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে।

নতুন বছর কেমন যাবে : নগদ টাকার অভাবে গত বছর যেসব ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধ করে দিতে হয়েছিল এ বছর সেগুলোতে আবার হাত দিতে পারবেন। বছরের কোনো কোনো সময় অন্যের দেওয়া ভুল তথ্য প্রেমের ব্যাপারে জটিলতার সৃষ্টি করতে পারে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া সম্পর্ক জোড়া লাগতে পারে। দীর্ঘদিনের পুরনো কোনো পারিবারিক সমস্যার সমাধান হবে। পুরাতন প্রেম ভেঙে যেতে পারে। নতুন নতুন কাজ হাতে আসবে। নতুন কোনো বন্ধু উপকারে আসতে পারে। ভয় ও সঙ্কোচ ধীরে ধীরে কেটে যাবে। এ বছর প্রেমের বিয়ের ব্যাপারে অভিভাবকদের কেউ কেউ প্রথমে অমত করলেও শেষ পর্যন্ত বিষয়টি তারা মেনে নেবে। ছাত্রছাত্রীরা এ বছর বিভিন্ন পরীক্ষায় বিশেষ কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হবে। এ বছর একাধিক লটারি কিংবা অন্য কোনো উপায়ে আকস্মিকভাবে অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। এ বছর প্রিয়জনের কাছ থেকে মানসিক আঘাত পাওয়ার ক্ষীণ সম্ভাবনা আছে।

মীন [১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ]
মীন রাশির শুভ সংখ্যা : ৪ ও ৭।
শুভ রং : বেগুনি, শুভ রত্ন : রক্তমুখী নীলা,
শুভ ধাতু : রুপা-সোনা।

মীন রাশির বৈশিষ্ট্য : রাশি বলয়ের সর্বশেষ রাশি মীন, গ্রহ বৃহস্পতি। এই রাশির জাতক-জাতিকারা তীব্র কৌতূহলী এবং জীবনকে দেখে বিশেষ দৃষ্টিকোণ থেকে। সহানুভূতি ও ক্ষমা এদের বিশেষ গুণ। প্রেম ও ধর্মের প্রতি বিশেষ আগ্রহ থাকে। মানুষের মন ও চিন্তাকে সঠিকভাবে বুঝতে পারে।

বছর কেমন যাবে : ২০১৪ সালের প্রথম দিকে আপনার মন শান্ত থাকবে। কিন্তু এর জন্য আপনার কিছু সময়ের প্রয়োজন হতে পারে। আপনি কোনোভাবেই চাইবেন না যে আপনার ব্যক্তিগত কাজের মধ্যে কেউ ঢুকে পড়ুক। যতটা সম্ভব নীরব থাকুন। আপনার মাথা থেকে কিছু না কিছু বেরিয়ে আসতে পারে। মার্চের দিকে আপনার কাছে সবকিছুই নতুন এবং আনন্দদায়ক মনে হতে পারে। আপনি কোনো একজন বিখ্যাত ব্যক্তির মতো হতে চাইবেন। জীবনটা তখন দ্রুতগতির নৌকার মতো চলতে চাইতে পারে। তবে দাঁড়টা টেনে রাখার মানসিকতা বজায় রাখুন। নচেত্ ভিন্নপথে চলে যেতে পারেন। ভিন্ন কোনো স্রোতে। জুন-জুলাইয়ের দিকে আপনি কোনো রহস্যের উদ্ঘাটন করে ফেলতে পারেন। অথবা দূরের কোনো ভবিষ্যত্ স্পস্ট দেখতে পারেন। জুলাইয়ের পরে আপনি বেশ কিছু দুঃখ-যন্ত্রণার মধ্যে পড়ে যেতে পারেন। রাজনীতিতে এমন কিছু কর্মদক্ষতা আপনি প্রদর্শন করতে পারবেন, যার মাধ্যমে দল তথা বৃহত্তর জনগোষ্ঠী উপকৃত হবে। এ বছর বেশির ভাগ আইনি লড়াইয়ের ফলাফল আপনার অনুকূলে যাবে। যা বছরের প্রথমেই হতে পারে।

মন্তব্য :



প্রকাশক: মোহাম্মদ কামরুজ্জামান,সম্পাদক: খায়রুল হাসান

নির্বাহী সম্পাদক: ইকবাল হোসেন ভূইয়া

বার্তা সম্পাদক: মোঃ সালেহ আকরাম (মেরিন)

যোগাযোগ: 54/1, নদ্দা-বারিধারা, গুলশান, ঢাকা-1212

 ফোন:02-8419040-41, মোবাইল: +88 01723 204846

ইমেল: crimeflashbd@gmail.com